Templates by BIGtheme NET

ধামরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার সহযোগীদের নির্যাতনের প্রতিবা‌দে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

মো: ওয়াসিম হোসেন, স্টাফ রি‌পোর্টার:
ঢাকা জেলার ধামরাইয়ের বালিয়া ইউনিয়ন প‌রিষ‌দের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আহম্মদ হোসেন ও তার সহযোগী আব্দুল গনি সুমনের নির্যাতনের ও দূর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসি।
আজ বুধবার (১৫সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টার সময় ধামরাই উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের আঞ্চলিক সড়কের চৌরাস্তায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।মানববন্ধন শেষে কাওয়ালীপাড়া টু বালিয়া আঞ্চলিক সড়কের বিশাল বিক্ষোভ মিছিল করে এলাকাবাসি। এ সময় তারা চেয়ারম্যান ও তার সহযোগী আব্দুল গনি সুমনের শাস্তি দাবি জানায়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করে বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল মজিদ। এতে বক্তব্য রাখেন বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: মজিবুর রহমান, বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো: আব্দুল মান্নান, বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও ইউ‌নিয়ন প‌রিষ‌দের মেম্বার মো
: এমারত হোসেন, সাবেক মেম্বার মো: গনি, মো: আব্দুর রহমানসহ প্রমুখ।
এই সময় বক্তরা বলেন. ধামরাই উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আহম্মদ হোসেন ও তার অপকর্মের সহযোগী আবদুল গনি সুমন মিলে সাধারণ মানুষকে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের উপর আত্যাচার করে টাকা হাতিয়ে নেয়। এ ছাড়া যারা চেয়ারম্যান ও তার সহযোগী গনির কথামত না চলে তাদেরকে বাড়ী থেকে বেরুতে দেয় না। এ সময় বক্তরা আরও বলেন, কিছু দিন আগে সুত্রাপুর গ্রামের মোঃ আবুল হোসেন নামে এক যুবককে চেয়ারম্যানের কথায় বাড়ী থেকে তুলে নিয়ে আব্দুল গনি সুমনের টর্চার সেলে নিয়ে মারধর করে তার কাছে ৫ লক্ষ টাকা দাবি করে। সেখানে আবুল এক লক্ষ টাকা দিয়ে মুক্তি পায়। আবার সুত্রাপুর গ্রামের মো: শহীদুল ইসলামের ৪০শতাংশ জমির মাটি ২০লক্ষ টাকায় বিক্রি করে আহম্মদ চেয়ারম্যান ও গনির কাছে। তারা তার টাকা না দিয়ে জোর করে মাটি কেটে নিয়ে গেছে, টাকা চাইলে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। সুত্রাপুর গ্রামের বাবু নামের এক ছেলেকে মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে পাঠিয়ে ছিলেন আব্দুুল গণি সুমন। আহম্মদ চেয়ারম্যান জোর করে নিরীহ মানুষের জমির মাটি কেটে ইটভাটায় নিয়ে যায়। তাই এলাবাসী বাংলাদেশ সরকারের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চেয়ারম্যান ও তার সহযোগী আব্দুল গনি সুমন এর বিচার দাবি জানি‌য়ে‌ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*