ধামরাইয়ে বিজয়ী হয়েই পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর কর্মীর উপরে হামলা আহত ২

মো: ওয়া‌সিম হো‌সেন:
ঢাকার ধামরাই উপজেলার সূতিপাড়া ইউনিয়নের নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী মোঃ আবু তাহের সরদার তালা মার্কা নিয়ে বিজয়ী হয়েই প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী মোরগ মার্কা মোঃ সোহেল মাহমুদের দুই কর্মীর উপরে হামলা চালিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
গতকাল বুধাবার (১৫জুন) রাত ১০টার দিকে ধামরাই উপজেলার সূতিপাড়া ইউনিয়নের বাথুলী কল্যাণপুর গ্রামে হামলার ঘটনাটি ঘটে। বিষয়টি আজ বৃহস্পতিবার বিকালে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আয়েশা আক্তার।
আহতরা হলেন, বাথুলী কল্যাণপুর গ্রামের মোঃ আওলাদ হোসেনের ছেলে মোঃ কালাচাঁন ও স্ত্রী আকলিমা বেগমকে পিটিয়ে আহত করে।
স্থানীয়সুত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার সূতিপাড়া ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ড থেকে মোঃ সোহেল মাহমুদ মোরগ মার্কায় এবং মোঃ আবু তাহের সরদার তালা মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্দীতা করেন। ভোট শেষে ফলাফলে বিকাল বেলায় মোঃ আবু তাহের তালা মার্কা নিয়ে বিজয়ী হয়। এর পর রাত ১০টার সময় আবু তাহের তার লোকজন নিয়ে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে একটি মিছিল নিয়ে সোহেল মাহমুদের বাড়ীতে গিয়ে মিছিল করতে থাকে। এই সময় কালাচাঁন মিছির করতে নিষেধ করলে মিছিল কারীরা কালাচাঁনকে কিল-ঘুষি মারতে থাকে। পরে কালাচাঁনের স্ত্রী আকলিমা বেগম দৌড়িয়ে আসলে মিছিলকারীরা কালাচাঁনের স্ত্রীকে মারধর করে ফেলে রেখে যায়।
এই বিষয়ে মোরগ মার্কার প্রার্থী সোহেল মাহমুদ বলেন, আমি কাজে বাহিরে ছিলাম। পরে জানতে পালাম আমার বাড়ীতে হামলা করেছে তাহের। এতে আমার চাচাতো ভাই ও তার স্ত্রীকে মারধর করেছে তাহের লোকজন।
এই বিষয়ে তালামার্কার বিজয়ী প্রার্থী মোঃ আবু তাহের সরদার বলেন, আমার লোকজন আনন্দ মিছিল নিয়ে উল্লাস করতে করতে সোহেল মাহমুদের বাড়ীর সামনে গেলে কালাচাঁন বিরক্তি হলে আমার লোকজনকে গালি দেন।পরে আমার লোকজন কালাচাঁনকে ধাক্কা দেয়। তাছাড়া কিছু না।
এই বিষয়ে ধামরাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নং কর্মকর্তা আয়েশা আক্তার বলেন, বিজয়ী পার্থীর মিছিল নিয়ে পরাজিত প্রার্থী সোহেল মাহমুদের বাড়ীতে হামলার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*