Templates by BIGtheme NET

১৩ জেলার সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের শনি ও রোববারের ছুটি বাতিল

Spread the love

প্র‌তি‌দিন বাংলা‌দেশ, ঢাকা:
অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলায় প্রস্তুতিসহ পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণের জন্য উপকূলীয় ১৩ জেলায় সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের শনি ও রোববারের (৯ ও ১০ নভেম্বর) ছুটি বাতিল করা হয়েছে।
ছুটি বাতিল করে শুক্রবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ১৩ জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। শনিবার (৯ নভেম্বর) সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাপ্তাহিক ছুটি। আর রোববার (১০ নভেম্বর) পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর ছুটি ছিল।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব এস এম শাহীন স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়, ঘুর্ণিঝড় বুলবুল সৃষ্ট পরিস্থিতি মোকাবিলার প্রস্তুতিসহ পরবর্তী প্রয়োজনীয় সব কার্যক্রম গ্রহণের জন্য ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিসি) বাস্তবায়ন বোর্ডের ২০১৯ সালের ৮ নভেম্বরের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট জেলার সব সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীর ৯ নভেম্বর সাপ্তাহিক ছুটি এবং ১০ নভেম্বর সরকারি ছুটি বাতিলসহ কর্মস্থল ত্যাগ না করার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।
যে সব জেলার সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে সেগুলো হলো, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, ভোলা, বরগুনা, পিরোজপুর, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, খুলনা, কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম।
শুক্রবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি) বাস্তবায়ন বোর্ডের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবিলার প্রস্তুতিসহ পরবর্তী প্রয়োজনীয় সকল কার্যক্রম গ্রহণের লক্ষ্যে এসব জেলায় সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটি বাতিলসহ কর্মস্থল ত্যাগ না করার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য ডিসিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল শনিবার সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাতের মধ্যে বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানতে পারে। ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসায় মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ও চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. ফরহাদ হোসেন বলেন, ঘূর্ণিঝড়ে যেন ক্ষয়ক্ষতি কম হয়, সে জন্য আমরা ঘূর্ণিঝড় প্রবণ ১৩ জেলার সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করেছি। আমরা সার্বক্ষণিক স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছি। তাদের কাছ থেকে ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতির সর্বশেষ অবস্থার খবর নিচ্ছি। স্থানীয় প্রশাসন আমাদের সবকিছু জানাচ্ছে, আমরা সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নিচ্ছি। যেন জান মালের ক্ষয়ক্ষতি না হয়, সেজন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। সবাই মিলে দুর্যোগ মোকাবিলা করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*