Templates by BIGtheme NET

৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি আস‌ছে

Spread the love

প্রতি‌দিন বাংলা‌দেশ, ঢাকা:
বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে মামলা জটিলতা নিরসন হয়েছে। নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে আইন মন্ত্রণালয় ইতিবাচক সম্মতিও দিয়েছে। ফলে স্কুল কলেজে ৪র্থ ধাপে প্রায় ৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে আর বাধা থাকছে না।
বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) এর চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বলেন, আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত আমরা পেয়েছি। এটি এখন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। মন্ত্রণালয়ের মতামতের ভিত্তিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।
কবে ৪র্থ ধাপে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান বলেন, মন্ত্রণালয়ের মতামত পেলে দ্রুত সময়ের মধ্যে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে।
জানা গেছে, স্কুল কলেজে চাহিদা অনুযায়ী শূন্যপদ পূরণ করতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রস্তুতি শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এ জন্য আদালতের কিছু আদেশ আছে, সেগুলো যাচাই বাছাই করে শূন্যপদের বিপরীতে এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। এছাড়া আবেদন প্রক্রিয়া কোন পদ্ধতিতে হবে, তার কর্মপরিকল্পনা তৈরি করা হচ্ছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বর্তমানে ৫৭ হাজারের কিছু বেশি পদশূন্য রয়েছে। এর মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভুলের কারণে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েও নিয়োগ না পাওয়া ১ হাজার ২৭০টি পদে আগের নিয়োগের ভুক্তভোগীদের নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। বাকি প্রায় ৫৬ হাজারের ম‌তো শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞ‌প্তি দেয়া হতে পারে।
জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, আইন মন্ত্রণালয় থেকে মতামত পাওয়া গেছে। কিন্তু বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) সেটি মন্ত্রণালয়ে এখনও পাঠায়নি। পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে দ্রুত সময়ে এর ওপর মতামত দেয়া হবে।
বেসরকারি শিক্ষক পদে নিয়োগের সুযোগ পেতে ১৩তম নিবন্ধনধারীরা রিট করেছিলেন। রিট করা ২ হাজার প্রার্থীকে আবেদনের সুযোগ দিতে আদালতের নির্দেশনা আছে। এ ছাড়া যাদের বয়স ৩৫ বছর হয়ে গেছে তাদের আবেদনের সুযোগের বিষয়েও নির্দেশনা দেন আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*